You are currently viewing বরিশালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

বরিশালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

বরিশালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া থেকে ফেরার পথে বরিশাল নগরীর কাশিপুরে সংঘর্ষে জড়িয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের অনুসারী দুই গ্রুপ।

এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের কয়েকজনকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

শনিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যায় কাশিপুরের একটি পেট্রোল পাম্পের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মফিজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ১৫ জন হাসপাতালের সার্জারি ও অর্থপেডিক্স ইউনিটে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ছয়জনের আঘাত গুরুতর।

আহতদের মধ্যে নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের ফাইজুল ইসলাম, আশিক, ২৯ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া, সাজ্জাদ হোসেন, ফরহাদ উদ্দিন, মাহাদি, মাসুদ, হাসান, তুহিন, রাহাতের নাম জানা গেছে।

আহতরা জানান, বরিশাল সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত ও পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরদের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় যান। সেখানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত করেন।

টুঙ্গিপাড়ায় বসেই বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম দেওয়ানের অনুসারী মাহাদির সঙ্গে ২৯ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া আলমের দ্বন্দ্ব হয়।

সন্ধ্যার দিকে টুঙ্গিপাড়া থেকে ফেরার পথে নগরীর গড়িয়ারপাড় এলাকায় ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়ার লোকজন নেতাকর্মীদের বহনকারী বাসে ইট নিক্ষেপ করে। এ নিয়ে ঘটনাস্থলে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

ছাত্রলীগ নেতা জুয়েল জানান, কাশিপুর এলাকা পৌঁছালে আচমকা আশপাশ থেকে বাসের ওপর ইট-পাটকেল পড়তে থাকে। পরে একদল দুর্বৃত্ত লাঠি-রড নিয়ে হামলা চালায়। তারা এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে সবাইকে আহত করে। এই মুহূর্তে হাসপাতালে যে ১৩-১৪ জন ভর্তি রয়েছেন, তাদের মধ্যে রাহাতের অবস্থা গুরুতর।

এ বিষয়ে নগরের ২৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নবনির্বাচিত কাউন্সিলর ইমরান মোল্লা বলেন, টুঙ্গিপাড়ায় খাবার দেওয়া নিয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে তর্ক হয়। পরে কাশিপুর পেট্রোল পাম্পে এসে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তবে কে কোন পক্ষের তা আমি জানি না।

মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম দেওয়ান ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা হয়েছে বলে জানালেও কারা এ হামলা করেছে, সে বিষয়ে বিস্তারিত জানেন না বলে দাবি করেন ইমরান মোল্লা।

সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হেলাল উদ্দিন জানান, দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়েছে বলে শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply